গুগল যেভাবে আশুগন্জের লাইভ ট্রাফিক দেখায়

খবর হচ্ছে গুগল বাংলাদেশে লাইভ ট্রাফিক ফিচার চালু করেছে। আমি যেহেতু মফস্বলে থাকি, জিনিসটা তেমন দরকারী না। তারপরেও ফেসবুকে এতবার নিউজটা দেখতেসি, ভাবলাম দেখি ত জিনিসটা কেমন কাজ করে? ম্যাপ খুললাম। পাম্পের মোড়ে লাল দেখাইতেসে, ঠিক আছে ঐখানে ত গ্যান্জাম থাকেই। কিন্তু হইওয়ের মাঝানে লাল দেখাইতেসে কেন? ঐখানে জ্যাম আসল কিভাবে? খ্যাক :V বুকুয়াস ফিচার, কাজ করে না। কিন্তু এক মিনিট, ঐখানে ত রাজমনি হোটেল। যেখানে অনেক বাসই থামে। ঐখানে হালকা একটু গ্যান্জাম থাকা অস্বাভাবিক না। তারমানে ঠিকি আছে। আাইস্সালা, ভালই ত কাজ করে। কিন্তু কথা হইল আশুগন্জের পাম্পের মোড়ে জ্যাম সেইটা গুগল জানে ক্যামনে? মানলাম তাদের স্যাটেলাইট আছে, সব দেখে। কিন্তু তাই বলে কি তারা সরা পৃথিবীর সকল চিপাচাপায় চব্বিশ ঘন্টা স্যাটেলাইট ধইরা রাখে?

তারা কিভাবে করে এইটা?

কোথাও জ্যাম থাকলে কি হবে? কিছু গাড়ি দাড়িয়ে থাকবে। অথবা আস্তে আস্তে চলবে। বাংলাদেশে যেহেতু সেলফ্ ড্রাইভিং কার চলে না, গাড়িতে মানুষও থাকবে। ( -চললেই বা কি? মানুষ না থাকলে কি রোবট থাকবে? -না মানে সেলফ্ ড্রাইভিং ট্রাক হয় যদি? তাহলে ত মানুষ নাও থাকতে পারে? -ধুর মিয়া, রাস্তায় কি খালি ট্রাক চলবে? -আইচ্ছা মাফ দেন। ভুল হইছে)

মানুষ থাকলে মানুষের সাথে স্মার্টফোন থাকারও ভাল সম্ভাবনা আছে। আর স্মার্টফোনে আছে জিপিএস এবং ইন্টারনেট এবং গুগল ম্যাপ। গুগল প্রতি মুহূর্তে ডিভাইসগুলোর লোকেশন সংগ্রহ করছে। যদি দেখে যে একটা রাস্তায় কিছু ডিভাইসের লোকেশন চেন্জ হচ্ছে না, তহলেই বুঝে যাবে ঐখানে জ্যাম।

তো আসল কথা এই, অসংখ্য ডিভাইসের লোকেশন এনালাইজ করে এগুলা ইডিট করা হয়। দেখতেসিলাম ঘুরায়া প্যাঁচায়া কত বড় করা যায়। ঐ কাম আমার না।

কিন্তু সবাই কি গুগল ম্যাপ ব্যাবহার করে?

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে লোকেশন হিস্ট্রি অন করা থাকলে গুগল ম্যাপ ব্যবহার না করলেও গুগল আপনার লোকেশন ডেটা কালেক্ট করে।

মোবাইল ডেটা অফ থাকলে?

আসলে জিপিএস কাজ করতে ইন্টারনেট থাকে লাগে না। ডেটা অফ থাকলেও লোকেশন ডেটা কালেক্ট হতে থাকে। তারপর অল্প সময়ের জন্য ডেটা অন করলে সেটা তাদের কাছে চলে যায়। মনে করেন আপনি কোথাও এক ঘন্টার জন্য আটকে আছেন। সরাক্ষন ডেটা অন থাকতে হবে না। এক মিনিটের জন্য ডেটা অন করলেই পুরোটা সময়ের হিস্ট্রি চলে যাবে। হ্যাঁ, জিপিএস অন থাকতে হবে।

কিন্তু তারপরেও

হ্যাঁ, তারপরেও ব্যাপারটা সহজ না। সারা পৃথিবীর কোটি কোটি ডিভাইসের লোকেশন এনালাইজ করে রিয়েল টাইমে ট্রাফিক স্টাট্যাস দেখানোটা সরা পৃথিবীর সব জায়গায় স্যাটেলাইট ধরে রাখার চেয়ে খুব বেশি সহজ না। এজন্যই গুগল গুগল

শেষ কথা

যাই হোক এটা মানুষের পার্সোনাল ডেটা কালেক্ট করে যেসব ভাল কাজ করা যায় সেগুলোর একটা। এখন আপনি প্রতি মুহূর্তে কই আছেন সেটা কেউ জানে, এটা অবশ্যই আঁৎকে উঠার মত ব্যাপার। কিন্তু এগুলা কালেক্ট করে ভাল কিছুও করা সম্ভব। তরপরেও যদি আপনি না চান যে গুগল আপনার লোকেশন হিস্ট্রি কালেক্ট করুক, আপনার ফোনের লোকেশন সেটিংসে গিয়ে লোকেশন হিস্ট্রি অফ করে দিতে পারেন।

Amateur programmer, writer, caveman.

Get the Medium app

A button that says 'Download on the App Store', and if clicked it will lead you to the iOS App store
A button that says 'Get it on, Google Play', and if clicked it will lead you to the Google Play store