পাইরেসি নিয়ে কিছু কথা

S.j. Sakib
Jan 18, 2018 · 3 min read

আমি সব সময়ই পাইরেসির বিরুদ্ধে। সেজন্যই বহুকাল আগে উইন্ডোজ ছেড়ে উবুন্টু ব্যবহার করা শুরু করি। (এখন অবশ্য মাগনা দিলেও ব্যবহার করব না!) তার পর থেকে সফট্ওয়্যার পাইরেসি যদিও আর করিনি, পাইরেটেড বই পড়া ছাড়তে পারিনি।

ব্যাপারটা নিয়ে কিছুটা গিল্টি ফিল করতাম অবশ্যই।( খুব বেশি না যদিও ;) ) তারপর একদিন একটা কোয়রা আনসার পড়ে একটা জিনিস মাথায় আসল।

আচ্ছা ভাবুন তো, একেবারে প্রথম থেকে যদি ফটোশপ ক্র্যাক করার কোন উপায় না থাকত, যদি সবার কিনে ব্যবহার করতে হত তাহলে কি হত? ফটোশপ কি এত জনপ্রিয় হত? একেবারেই না। হয়ত অল্প কিছু মানুষ ফটোশপ ব্যবহার করত। আর বাকিরা কি করত? বাকিরা খালি হাতে বসে থাকত না। অবশ্যই বিকল্প তৈরী হত। হয়ত ফটোশপ থেকে সস্তা, কিংবা ফ্রি। ( বিকল্প এখনও আছে, তবে মার্কেটে পাইরেটেড ফটোশপ না থাকলে আরো ভাল বিকল্প তৈরী হত বলে আমি মনে করি) তাহলে দেখা যাচ্ছে আপনার ব্যাক্তিগত পাইরেসি থেকে কোম্পানিগুলোর লাভই হচ্ছে। আপনি হয়ত বাসায় একসময় পাইরেটেড ফটোশপ ব্যবহার করতেন। কিন্তু আজ আপনি প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার। এখন অফিসের জন্য আপনি কি চাইবেন? অবশ্যই ফটোশপ। যদি পাইরেটেড ফটোশপ না থাকত তাহলে হয় আপনি অন্য কোন বিকল্প ব্যবহার করতেন বা কিছুই ব্যবহার করতেন না। সেক্ষেত্রে অফিসেও আপনি সেটাই ব্যবহার করতেন কিংবা আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতেই পারতেন না। আবার আপনি হয়ত গ্রাফিক্স ডিজাইনের বিভিন্ন টিউটোরিয়াল তৈরী করেছেন। যারা সেগুলো দেখে শিখেছে তারাও ফটোশপ ব্যবহার করে। সম্ভাবনা আছে তারাও একদিন কিনে ব্যবহার করবে।

সেইম কথা উইন্ডোজ সহ বাকি সব জনপ্রিয় সফট্ওয়্যারের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। যদি পাইরেসি না থাকত তাহলে তারা আজ মার্কেট ডমিনেট করতে পারত না। কিংবা মার্কেটটাই এত বড় হতে পারত না।

বিদেশি বইগুলোর জন্যও ব্যাপারটা সত্যি। আমি যদি কোন এক রাইটারের পাইরেটেড বই না পড়তাম, তাহলে তাকে চিনতামই না। এখন তার বই পড়ে ভাল লেগেছে, হয়ত তার ভবিষ্যৎ কোন বই কিনে পড়ব।

তাই বলে পাইরেসি কিন্তু জায়েজ হয়ে যায়নি। এসব ক্ষেত্রে দেখা যায় আমাদের হাতে অপশন খুবই অল্প। দেখা যায় সফট্ওয়্যার বা বই আমাদের দেশ থেকে কেনার ব্যবস্থাই নেই, থাকলেও দাম খুবই বেশি। একেবারে নাগালের বাইরে। ব্যাপারটা এমন যে, হয় পাইরেটেড ভার্সন ব্যবহার কর, নাহয় একবারে করোই না। এক্ষেত্রে একেবারেই না ব্যবহার করার থেকে পাইরেটেড ভার্সন ব্যবহার করলে কোম্পানি বা রাইটারের লাভ। কিন্তু জিনিসটা আপনার হাতের নাগালে থাকার পরও যদি আপনি পাইরেটেড ভার্সন ব্যবহার করেন, তাহলে কিন্তু আপনি কোন দিনই কিনে ব্যবহার করবেন না। এতে রাইটার বা কোম্পানির কোন লাভ নেই। বরং বিরাট লস। তাই দয়া করে দেশী বই/সফটওয়্যারের পাইরেসি বন্ধ করুন। আপনি যদি এটা পড়তে পারেন, তাহলে আপনার পিসি/মোবাইল আছে। ইন্টারনেট কিনে ব্যবহার করার সামর্থ্যও আছে। তাহলে তিন চারশ টাকা দিয়ে একটা বই কেনার সামর্থ্যও আছে।

বাংলাদেশে বড় বড় অফিসগুলোতে পাইরেসি বন্ধ করতে ইতোমধ্যেই ব্যবস্থা নেয়া শুরু হয়েছে। সামনে আরো জোরদার হবে। তবে ব্যক্তিগত পর্যায়ে পাইরেসি বন্ধ করতে কোম্পানিগুলো তেমন জোরদার ব্যবস্থা নেবে না বলেই আমার মনে হয়।

এখন কিন্তু সব বেসিক কাজের জন্যই ফ্রি, ওপেনসোর্স প্রোগ্রাম পাওয়া যায়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে সেগুলো পেইডগুলো থেকেও ভাল। বড় বড় প্রতিষ্ঠান জরিমানা এড়াতে অলরেডি সেগুলো ব্যবহার করা করতে শুরু করেছে। হয়ত একদিন সবাই সবখানে ফ্রি ওপেনসোর্স সফটওয়্যারই ব্যবহার করবে। এগিয়ে থাকতে আপনিও শুরু করতে পারেন।

সবশেষে এটুকুই বলব যে, বাধ্য না হলে পাইরেসি করবেন না। তবে যদি বাধ্য হয়ে করেন, গিল্টি ফিল করার কিছু নেই। পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

S.j. Sakib

Written by

Amateur programmer, writer, caveman.

Welcome to a place where words matter. On Medium, smart voices and original ideas take center stage - with no ads in sight. Watch
Follow all the topics you care about, and we’ll deliver the best stories for you to your homepage and inbox. Explore
Get unlimited access to the best stories on Medium — and support writers while you’re at it. Just $5/month. Upgrade